হাটে পর্যাপ্ত পশু আসলেও এখনো নেই ক্রেতার তেমন সমাগম


রাজধানীতে আজ থেকে শুরু কোরবানির পশুর হাট। মেরুল বাড্ডার আফতাবনগর পশুর হাটে পর্যাপ্ত পশু আসলেও এখনো নেই ক্রেতার তেমন সমাগম।

তবে বিক্রেতারা পশুর দাম হাঁকছেন বেশি। আর দাম শুনে হতাশা জানিয়েছেন ক্রেতাদের অনেকেই। হাটে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত। তবে মানুষকে এ ব্যাপারে সচেতন করতে কাজ করছে হাট কর্তৃপক্ষ ও সিটি করপোরেশন।

গাজীপুরের ডন। রাজধানীর মেরুল বাড্ডার আফতাবনগর পশুর হাটে সবার নজর কাড়ে এই গরুটি। বিক্রেতা ২৫ লাখ টাকা দাম হাঁকলেও ক্রেতারা ১৭ লাখ পর্যন্ত বলছেন।

ডনের মতোই এই হাটের আরেকটি নজরকাড়া গরু বিগ বস। তবে এটির ওজন ৩৩ মন হলেও ক্রেতার উপস্থিতি ছাড়া গরুটির দাম বলতে নারাজ বিক্রেতা।

বড় গরুর বাইরেও এই হাটে উঠেছে অসংখ্য ছোট ও মাঝারি গরু। কোরবানির হাটের প্রথম দিন হওয়ায় এখনো জমে উঠেনি বেচাকেনা। ক্রেতারা এখনো ব্যস্ত বাজার যাচাই আর দরদামেই। কেউ কেউ গরু কিনলেও অনেকেই গরুর উচ্চ মূল্য নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন।

বাজারে গরুর পাশাপাশি উঠেছে ছাগলও। বিক্রেতারা অপেক্ষা করছেন ক্রেতা সমাগমের। হাটে স্বাস্থ্যবিধি অনেকটাই উপেক্ষিত। ইজারাদার ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন হাটে আসা ক্রেতা বিক্রেতাদের সচেতন করার পাশাপাশি ভ্রাম্যমান আদালত জরিমানাও করেছে কয়েকজনকে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন,’মাইকের মাধ্যমে সচেতন করেছি। কাছে যেয়ে বলার চেষ্টা করেছি। যারা মাস্ক নাকের নিচে ঝুলিয়ে রেখেছে তারা যাতে যথাযথভাবে মাস্ক পরে সেটা আমরা বলেছি। আর যাদের কাছে মাস্ক ছিলো না তাদের আমার জরিমানা করেছি।’

সাধ্যের মধ্যে পছন্দের পশুটি কিনে বাড়ি ফিরবেন ক্রেতা, আর বিক্রেতারাও মহামারির এই সময়ে কিছুটা লাভের মুখ দেখবেন, এমনটাই প্রত্যাশা দুপক্ষের।

Top
ঘোষনাঃ