শেরপুরে মানব পাচারকারী দলের এক নারী সদস্য আটক, কিশোরী উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার:
শেরপুর সদরের চরমোচারিয়া মাঝপাড়া এলাকা থেকে সন্দেহভাজন মানব পাচারকারী চক্রের নারী সদস্য জরিনা আক্তারকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় কামারচর জরিনার বাবার বাড়ি থেকে মালা আক্তার নামে এক কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে। আজ দুপুরে তাকে আটক ও কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর র‌্যাবের সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত এক মাসে আগে কিশোরী মালা বাড়ী থেকে নিখোঁজ হয়। এরপর ওই তার বাবা হাসেম আলী সদর থানায় জিডি করলেও মেয়ের কোন সন্ধান পাননি। আজ সকালে জরিনার বাবার বাড়িতে স্থানীয়রা কিশোরীকে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে এবং ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে জরিনা আক্তারকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। তবে ঘটনার সাথে জড়িত থাকা জরিনার দাবি, এক মাস আগে মালা নিজ ইচ্ছায় তার কাছে আসে।

এদিকে অপহৃত কিশোরী বলছে, আমাকে জোর করে অপহরণ করে নিয়ে যায় এবং ভাতের সাথে ঔষধ খাইয়ে অচেতন করে রাখে।

এ ব্যাপারে পুলিশ ক্যামেরার সামনে কথা না বললেও সদর থানার ওসি মনসুর আহম্মদ জানিয়েছেন, মহিলা ভিকটিমের দূর সম্পর্কের দাদী; জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

Top
ঘোষনাঃ