ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নালিতাবাড়ীতে ছাত্রলীগ নেতা হারুন গ্রেফতার


নালিতাবাড়ী শেরপুর প্রতিনিধি :

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে বিষোদগারের অভিযোগে জেলা ছাত্রলীগের উপ-সাহিত্য সম্পাদক হারুন অর রশিদকে (২৬) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সকালে শহরের আড়াইআনী বাজার থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি উপজেলার বাঘবেড় এলাকার মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে এবং নাজমুল স্মৃতি কলেজের শিক্ষার্থী।

একইদিন দুপুরে গ্রেপ্তার আদালতে সোপর্দ করা হলে বিশেষ দায়িত্বে থাকা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর আল মামুন তাকে জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ছাত্রলীগ নেতা হারুন অর রশিদ গত ২৪ জুন তার ফেসবুক আইডি ও বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপে নালিতাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হককে ‘ছোট রাজাকারের ছেলে’ বলে আখ্যা দেয় এবং উস্কানিমূলক কথাবার্তা পোস্ট করে। ওইসব পোস্টে অনেকেই পক্ষে-বিপক্ষে মন্তব্য করলে সেসব মন্তব্যের প্রেক্ষিতেও ব্যাঙ্গাত্মক ও বাজে মন্তব্য করে পোস্ট দিতে থাকে হারুন।

একপর্যায়ে বিষয়টি আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের দৃষ্টিগোচর হয়। ওই ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক বাদী হয়ে হারুনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে আসামি করে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা গ্রহণ করে এবং একইদিন বেলা এগারােটার দিকে শহরের আড়াইআনী বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ। পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করে থানা পুলিশ।

নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বশির আহমেদ বাদল জানান, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককে নিয়ে ফেসবুকে কুরুচিকর ও উস্কানিমূলক পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা হারুন-অর-রশীদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নিয়মিত মামলা রুজু হয়েছে। ওই মামলায় তাকে ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Top
ঘোষনাঃ